ফোন: ০৪৩১-২১৭৭৭৮৭
ইমেল:karbarisal@gmail.com

আয়করে প্রবৃদ্ধি দেশ ও দশের সমৃদ্ধি

সম্ভাবনা

অপেক্ষাকৃত নূতন কর অঞ্চল হিসেবে এমনিতেই সার্বিক ক্ষেত্রে বরিশাল কর অঞ্চলের উন্নয়নের অনেক সম্ভাবনা রয়েছে। দেশের সার্বিক অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির সাথে সাথে বরিশাল কর অঞ্চলেও রাজস্ব আদায় বৃদ্ধি পাবে। নূতন করদাতা করনেটভূক্ত করণের মাধ্যমে স্বাভাবিক ভাবে রাজস্ব আদায়বৃদ্ধি পাবে। উল্লেখিত স্বাভাবিক প্রবৃদ্ধি ও পাশাপাশি নিম্নলিখিত বাস্তবায়নাধীন প্রকল্প সমুহের বাস্তবায়ন শেষ হলে বরিশাল কর অঞ্চলের রাজস্ব আয় অধিকতর হারে বৃদ্ধি পাবে বলে আশা করা যায়।

ক্রমিক নং

প্রকল্পের নাম

প্রকল্পের অবস্থান

বাস্তবায়ন কাল

সম্ভাব্য ফলাফল

১।

পদ্মাবহুমুখী সেতুপ্রকল্প

মাদারীপুর জেলা

২০১৭
সালের মধ্যে

রাজধানীর সাথে দক্ষিণাঞ্চলের দ্রুত যোগাযোগের ক্ষেত্রে যুগান্তকারী উন্নয়নহবে। দূর ভবিষ্যতে রেল পথ ও গ্যাসলাইন স্থাপনহবে। ফলে অর্থনৈতিক কর্মকান্ড বেড়ে যাবে। নূতন নূতন শিল্পকারখানা স্থাপিত হবে। কর দাতার সংখ্যা বাড়বে এবং বিদ্যমান কর দাতাদের আয় বৃদ্ধি পাবে। ফলে রাজস্ব বৃদ্ধি পাবে।

২।

পায়রা বন্দর প্রকল্প

পটুয়াখালী জেলা

২০১৫
সালের মধ্যে

আমদানীর প্তানীর ক্ষেত্রে মালামাল পরিবহনে সময় ও খরচ কমবে। অর্থনৈতিক কর্মকান্ড বৃদ্ধি পাবে। উৎসেকরসহ রাজস্ব আদায়বৃদ্ধি পাবে।

৩।

কুয়াকাটা পর্যটন উন্নয়ন প্রকল্প

পটুয়াখালী জেলা

২০১৭
সালের মধ্যে

নতুন হোটেল, মোটেল নির্মানহবে, জনগণের চলাচল সহ পরিবহন খাতের ব্যবসা বৃদ্ধি পাবে এবং ট্রেডিংখাতের ব্যবসাও বৃদ্ধি পাবে।

৪।

ক্ষুদ্র ও মাঝারী শিল্পের অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রকল্প

ভোলা জেলা

২০১৯
সালেরমধ্যে

ক্ষুদ্র ও মাঝারীশিল্প স্থাপিতহলে অর্থনৈতিক কর্মকান্ড বৃদ্ধি পাবে, কর্মসংস্থান বৃদ্ধি পাবে, এলাকায় জনগণের আয় বৃদ্ধি পাবে। করদাতার সংখ্যা বাড়বে এবং আয়কর খাতে রাজস্ব বৃদ্ধি পাবে

৫।

সড়ক পথ ৪ লেনে উন্নয়ন প্রকল্প

পটুয়াখালী, বরিশাল, মাদারীপুর, ঝালকাঠী, পিরোজপুর।

২০১৯
সালেরমধ্যে

যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নতি হবে। ফলে এই অঞ্চলে অর্থনৈতিক কর্মকান্ড বৃদ্ধি পাবে এবং রাজস্ব আদায় বৃদ্ধি পাবে।